রাজবাড়ীর লজ্জাতুন্নেছা কামিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা-

রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

রাজবাড়ী জেলা শহরের শ্রীপুর লজ্জাতুন্নেছা কামিল মাদ্রাসার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ দিদার উল্লার বিরুদ্ধে মঙ্গলবার দুপুরে রাজবাড়ী থানায় একটি ধর্ষণের মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলাটি দায়ের করেছেন, জেলা শহরের একটি কলেজের অনার্স প্রথম বর্ষের ছাত্রী। দিদার উল্লা বরগুনা জেলার বেতাগি উপজেলার গ্রেদলক্ষীপুর গ্রামের মৃত আব্দুল গণির ছেলে। তবে ঘটনার পর থেকেই দিদার উল্লা আতœগোপনে রয়েছেন বলে জানাগেছে।
ওই ছাত্রী জানিয়েছেন, পূর্ব পরিচয়ের সূত্রধরে দিদার উল্লা তাকে শ্রীপুর লজ্জাতুন্নেছা কামিল মাদ্রাসায় শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ দেয়া এবং স্ত্রী সন্তানরা বরগুনার গ্রামের বাড়ীতে থাকায় তিনি রাজবাড়ীতে তাকে বিয়ে করে বসবাস করার প্রতিশ্রুতি গত ৭ আগষ্ট দুপুরে তার ভাড়া বাসায় ডেকে আনেন। সে ওই বাসায় গেলে দিদার উল্লা সুকৌশলে ঘরের দরোজা বন্ধ করে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোরপূর্বক বোরকা ও জামা-কাপড় খুলে ধর্ষণ করে।
এ বিষয়ে জানতে দিদার উল্লা-এর মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও তা বন্ধ পাওয়া যায়।
রাজবাড়ী থানার ওসি স্বপন কুমার মজুমদার বলেন, আদালতের নির্দেশে গতকাল মামলাটি রাজবাড়ী থানায় রেকর্ড করা হয়েছে। তবে ঘটনার পর থেকে আসামি দিদার উল্লা আতœগোপনে থাকায় তাকে গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়নি। তবে তাকে গ্রেপ্তারের প্রক্রিয়া অব্যাহত রয়েছে।

(Visited 794 times, 1 visits today)