গোয়ালন্দে বৃদ্ধের জায়গা দখল, থানায় অভিযোগ –

শামীম শেখ, রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে প্রতিপক্ষ বৃদ্ধের বসতঘর ভেঙ্গে ও গাছপালা কেটে বসত ভিটার জমি জবর দখল নেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। দখলী জায়গায় সিমেন্টের খুঁটি ও টিনের বেড়া দিয়ে দেয়া হয়েছে শক্ত বেড়া। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার পশ্চিম উজানচর নবু ওসিমদ্দিন পাড়ার হোসেন সরদারের বাড়ীতে। এ ব্যাপারে গোয়ালন্দঘাট থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

শনিবার দুপুরে সরেজমিনে জানা যায়, গোয়ালন্দ উপজেলার পশ্চিম উজানচর নবু ওসিমদ্দিন পাড়ার হোসেন আলী সরদারের (৭৫) জমাজমি নিয়ে একই এলাকার মৃত খোরশেদ শেখের ছেলে হাসেম উদ্দিন শেখ, আচমত শেখ ও হাসমত শেখের সাথে রাজবাড়ীর আদালতে মামলা মকর্দ্দমা চলে আসছিল। এর জের ধরে বৃহস্পতিবার সকাল সারে ১০টার দিকে হোসেন আলীর বাড়ীতে ঢুকে প্রতিপক্ষের লোকজন হামলা চালিয়ে তার দুটি টিনের ছাপড়াঘর, রান্নাঘর ভেঙ্গে ও অনেকগুলো ছোট-বড় মেহগণি, পেয়ারা,পেঁপেঁসহ নানা ধরনের ফলজ গাছ কেটে পাকা খুঁটি পুঁতে টিনের বেড়া দিয়ে ভিটের প্রায় ৫ শতাংশ জায়গা দখল করে। এ সময় হোসেন আলী শেখের বাড়ীতে তেমন কোন লোকজন না থাকায় খুব অল্প সময়ের মধ্যে ৩০/৪০ জনের একটি সংঘবদ্ধ বাহিনী এক রকম নির্বিঘেœ দখলকাজ সম্পন্ন করে। এ বিষয়ে হোসেন আলী শুক্রবার রাতে গোয়ালন্দঘাট থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

বৃদ্ধ হোসেন আলী শেখ জানান, আমার প্রতিপক্ষ আচমত শেখ যে দাগ নম্বর থেকে জমি ক্রয় করেছে ওই দাগে জমি বিক্রেতার কোন জমি না থাকায় এবং আমার জমির দাগের পূর্বের মালিকও একই ব্যক্তি হওয়ায় আচমত শেখ জোর করে আমার ঘর ভেঙ্গে ও গাছপালা কেটে আমার জমি দখল করেছে।

এ সময় হোসেন আলীর ছেলে সোহেল ও স্থানীয় আঃ রহমান বলেন, বুধবার সকালে হাসেমদ্দিন, আচমত, হাসমত,মোস্তফা,আঃ ছাত্তার, শাজাহান, আবুলসহ ৩০/৪০ জনের একটি সংঘবদ্ধ বাহিনী লঠি-সোঠা ও দেশীয় অস্ত্র-সস্ত্র নিয়ে সংঘব্ধ দূর্বৃত্তরা অতর্কিতে এসে ঘর-দোর ভেঙ্গে গাছ পালা কেটে বেড়া দেয়। এ সময় ভয়ে তাদের সামনে কেউ দাঁড়াতে সাহস পায়নি।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত দখলকারী আচমত আলী শেখ মুঠোফোনে জানান, আমি ওই জমি ৫ বছর আগে দুলি ও ফুলির কাছ থেকে ক্রয় করেছি। আমার জমিতে খোটা পোতা ছিল। হোসেন আলী ওই জমির দখল ছাড়ছিল না। তাই এলাকাবাসীকে সাথে নিয়ে আমি জমির দখল নিয়েছি।

গোয়ালন্দঘাট থানার ওসি রবিউল ইসলাম জানান, হোসেন আলী সরদারের অভিযোগ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ ব্যাপারে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

(Visited 55 times, 1 visits today)