গ্রেনেড হামলার জন্য তারেক রহমান দায়ী- এমপি কাজী কেরামত আলী-

রুবেলুর রহমান,স্বপন কুমার বিশ্বাস, রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

রাজবাড়ী-১ আসনের এমপি ও সাবেক শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী কাজী কেরামত আলী বলেছেন, ২০০৪ সালের ২১ আগষ্ট গ্রেনেড হামলার মুল নায়ক বিএনপির ভারপ্রাপ্ত ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান। তার নির্দেশে ওই দিন গ্রেনেড হামলা হয়েছিল। এ জন্য তার ফাঁসি হওয়া প্রয়োজন। আওয়ামী লীগকে নের্তৃত্ব শুন্য করতেই ওই দিন গ্রেনেড হামলা চালানো হয়েছিল। হামলায় আইভি রহমানসহ ২৪ জন নিহত ও বহু নেতাকর্মী আহত হয়েছিলেন। আহতরা আজও স্প্রীন্টারের আঘাতে তার করুন স্মৃতি বয়ে বেড়াচ্ছেন। কিন্তু রাখে আল্লাহ মারে কে। মানব ঢাল তৈরির মাধ্যমে ওই দিন বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে রক্ষা করেছিলেন নেতাকর্মীরা।
আজ বুধবার বিকালে জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত দলীয় কার্যালয়ে ২১ আগষ্ট গ্রেনেড হামলা দিবসের আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।
কাজী কেরামত আলী বলেন, বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া দেশ চালাতেন আমলা দিয়ে, তাই আজ বিএনপির এ করুন অবস্থা। কিন্তু বর্তমান আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমলা দিয়ে নয়, নিজের বুদ্ধি দিয়ে দেশ চালান। তাই আজ বাংলাদেশ বিশ্বের বুকে উন্নয়নের রোল মডেল। এ জন্যই শেখ হাসিনার নের্তৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। আগষ্ট মাস শোকের মাস, এই শোকের মাসকে শক্তিতে পরিনত করে প্রধানমন্ত্রীর হাতকে শক্তিশালী করতে হবে এবং গ্রেনেড হামলার সাথে জরিত সবাইকে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শ্বাস্তি দিতে হবে।
সভার শুরুতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু ও গ্রেনেড হামলায় নিহত আইভি রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্প্যমাল্য অপর্ণ করেন দলটির নেতাকর্মীরা। সেই সাথে গ্রেনেড হামলায় নিহত ও আহতদের শ্রদ্ধার সাথে স্বরণ করা হয়।
সভায় জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি শেখ আব্দুস সোবাহান এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও রাজবাড়ী-১ আসনের এমপি কাজী কেরামত আলী।
বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক কাজী ইরাদত আলী, সহ-সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফকির আব্দুল জব্বার, পৌর মেয়র মহম্মদ আলী চৌধুরী, হেদায়েত আলী সোহরাব, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী ও সাবেক সংরক্ষিত আসনের এমপি কামরুন নাহার চৌধুরী লাভলী, সদর থানা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক শেখ মোঃ ওহিদুজ্জামান, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতিে ্যাডঃ উজির আলী প্রমূুখ।
সভাটি পরিচালনা করেন, জেলা আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদকে ্যাডঃ সফিকুল ইসলাম।
আলোচনা সভা শেষে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এতে নিহত ও আহতদের জন্য দোয়া এবং তাদের রুহের মাগফিরাত কামনা করা হয়।

(Visited 73 times, 1 visits today)