রাজবাড়ীর টিটিসি’তে ড্রাইভিং কোর্সে ভর্তি নিয়ে লুকোচুরি –

রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

অনিয়মে পূর্ণ এখন রাজবাড়ী কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র (টিটিসি)। যার ছায়া পড়েছে ওই দপ্তরের ড্রাইভিং প্রশিক্ষণ কোর্সে ভর্তিতেও। সম্পূর্ণ লুকোচুরির মাধ্যমে ওই কোর্সের ভর্তি গ্রহণের আয়োজন করেছে প্রতিষ্ঠানটির অধ্যক্ষ।
জানাগেছে, ঈদুল আযহার ডামাডলের মধ্যে প্রতিষ্ঠান প্রধান অত্যান্ত সুকৌশলে গত ১ আগষ্ট থেকে ২০ আগষ্ট পর্যন্ত সময় দিয়ে ড্রাইভিং প্রশিক্ষণার্থী ভর্তি বিজ্ঞপ্তি প্রকশ করেন। ইতোপূর্বে কোন রুপ প্রচার প্রচারনা না করে কঠোর গোপনীয়তা অবলম্বন করে ভর্তি কার্যক্রম শুরুর দশ দিন পর আজ শনিবার স্থানীয় একটি পত্রিকায় ওই কোর্সে ভর্তির বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে।
খোজ নিয়ে জানাগেছে, আগামীকাল রবিবার থেকে শুরু ঈদুল আযহার ছুটি। ঈদের আমেজ কাটিয়ে সরকারী ছুটি শেষে আগামী ১৪ আগষ্ট অফিস খুললেও ১৫ আগষ্ট বন্ধ ১৬ আগষ্ট শুক্রবার, ১৭ আগষ্ট শনিবারের সরকারী ছুটি। তার ফর অফিস খোলা ১৮, ১৯ ও ২০ আগষ্ট। ওই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ড্রাইভিং প্রশিক্ষণে ভর্তি ইচ্ছুকরা ২০ আগষ্টের মধ্যেই আবেদন ফরম সংগ্রহণ এবং জমা দেবে।
প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ প্রদত্ত ওই ভর্তি বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, দেশ বিদেশে শিক্ষিত ও দক্ষ পেশাদার ড্রাইভারের চাহিদা পূরণের লক্ষে জনশক্তি,কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর অধিনে থাকা রাজবাড়ী টিটিসি’তে সম্পূর্ণ সরকারী খরচে চার মাস মেয়াদী “মোটর ড্রাইভিং উইথ বেসিক মেইনটেন্যান্স” কোর্সের পঞ্চম ও ষষ্ঠ কোর্সের প্রশিক্ষণার্থী ভর্তি চলছে। এ প্রশিক্ষণে ভর্তির আবেদনকারীকে অবশ্যই ড্রাইভিং পেশায় আগ্রহি হতে হবে। শিক্ষাগত যোগ্যতা অষ্টম থেকে এসএসসি সমমান। বয়স ২০ থেকে ৩৫। এনআইডি কার্ড এবং সিভিল সার্জন প্রদত্ত স্বাস্থ্যগত যোগ্যতার সার্টিফিকেট জমা দিতে হবে। অপরদিকে, প্রশিক্ষণ চলাকালিন প্রশিক্ষণার্থীকে দৈনিক ১০০ টাকা প্রদান করা হবে। দেশে বিদেশে কর্মসংস্থান প্রাপ্তিতে সহযোগিতা করা হবে। সরকারী খরচে ড্রাইভিং লাইন্সে প্রদানের সহযোগিতা এবং ইংরেজি ও আরবি ভাষা শেখানো হবে।
এ কোর্সে আবেদন করতে ইচ্ছুক সদর উপজেলার রামকান্তপুর ইউনিয়নের চরপাড়া গ্রামের যুবক রফিকুল ইসলাম বলেন, তিনি বেশ কিছু দিন ধরে টিটিসিতে ঘোড়াঘুড়ি করছেন ড্রাইভিং প্রশিক্ষণে অংশ হিসেবে বিদেশে যাবার জন্য। অথচ তাকে বলা হয়েছে পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি দেয়া হবে, তখন বিজ্ঞপ্তি দেখে আবেদন করবেন। গতকাল তিনি পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তিটি দেখেছেন। ঈদের ছুটির মধ্যে এতো দ্রুত সকল কাগজপত্র সংগ্রহণ করা এবং সবচেয়ে কঠিন ব্যাপার সিভিল সার্জন প্রদত্ত স্বাস্থ্যগত যোগ্যতার সার্টিফিকেট সংগ্রহ করে তা আবেনপত্রের সাথে জমা দেয়া। এটা কি করে সম্ভব। তার মতে ওই প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারা তাদের ব্যক্তিগত লোকদের এ প্রশিক্ষণে নেবার লক্ষে দশ দিন পর ঈদের ছুটির মধ্যে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। যাতে তাদের মত সাধারণ ব্যক্তিরা এ প্রশিক্ষণে অংশ নিতে না পারে।
এ কোর্সে আবেদন করতে ইচ্ছুক সদর উপজেলার মিজানপুর ইউনিয়নের মহাদেবপুর গ্রামের অপর যুবক শফিকুল মন্ডল বলেন, ইতোপূর্বেও একই ভাবে লুকোচুরির মাধ্যমে এ প্রতিষ্ঠানে ড্রাইভিং প্রশিক্ষর্থীদের নেয়া হয়েছে। তিনি আগেও আবেদন করার চেষ্টা চালিয়ে ব্যর্থ হন। এবারও কর্তৃপক্ষ একই পদ্ধতী অবলম্বন করেছেন। তিনি এই ভর্তি বিজ্ঞপ্তি বাতিল করে নতুন সময় নির্ধারণ করে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের অনুরোধ করেন।
এ প্রসঙ্গে জানতে রাজবাড়ী কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র (টিটিসি)’র অধ্যক্ষ ফাতেমা নার্গিস-এর মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেন নি। তবে বিজ্ঞপ্তিতে থাকা মুঠোফোনে কল করা হলে, ওই প্রতিষ্ঠানের জনৈক ইন্সেটেক্টর মেহেদী হাসান জানান, এবারের প্রশিক্ষণে ৪০ জন প্রশিক্ষণার্থী নেয়া হবে। তাকে দশ দিন পর বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ এবং ঈদ ছুটির মধ্যে এই ভর্তির আবেদন গ্রহণের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি জানান, এ ভর্তির আবেদন চেয়েছেন অধ্যক্ষ। তার কিছু করার নেই, এই বলে তিনি ফোনের সংযোগ কেটে দেন।
এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক দিলসাদ বেগমের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, ঈদের ছুটির মধ্যে আবেদনপত্র চাওয়া ঠিক হয়নি। তিনি বিষয়টি দেখবেন বলেও জানান।

(Visited 106 times, 1 visits today)