রাজবাড়ীতে ৬ বছরের শিশুকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ –

রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

মোবাইল ফোনে গান দেখানোর কথা বলে রাজবাড়ীতে ৬ বছরের এক শিশুকে যৌন নির্যাতন করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। অসুস্থ্য শিশুটিকে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
রাজবাড়ী সদর হাসপাতালের দ্বিতীয় তলায় অবস্থান করা ওই শিশুর মা বলেন, তাদের বাড়ী পাবনা জেলায়। তারা স্বামী-স্ত্রী দু’জনে রাজবাড়ী জেলা শহরের একটি জুট মিলে চাকুরী করেন। আজ মঙ্গলবার সকালে তারা কাজে যান। বাসায় তখন তার ৬ বছর বয়সী শিশু ছেলে একা অবস্থান করছিলো। ওই সুযোগে একই জুট মিলের শ্রমিক ও পাবনা জেলার ইশ^র্দীর বাসিন্দা নাহিদ (১৫) মোবাইলে গান শোনানোর বথা বলে রাজবাড়ী সদর উপজেলার রামকান্তপুর ইউনিয়নের কাজীবাদা গ্রামের ভাড়া বাসায় তার ছেলেকে ডেকে নিয়ে যায়। ওই সময় গান দেখানোর ছলে নাহিদ তার শিশু ছেলেকে যৌন নির্যাতন করে। ওই সময় তার ছেলে চিৎকার করে। ছেলেটির পায়খানার রাস্তা যখন রক্তাক্ত জখম হয়, তখন নাহিদ ছেলেকে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। শিশুটি তখন ব্যাথায় চিৎকার করতে থাকে। পরে স্থানীয়রা শিশুটিকে উদ্ধার করে তার বাবা মাকে ডেকে আনে। তারা শিশুটিকে দ্রুত হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নিয়ে আসে। সে সময় জরুরী বিভাগের ডাঃ গিয়াস চিকিৎসা সেবা প্রদানের পাশাপাশি হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি থাকার নির্দেশ প্রদান করেন।
শিশুটির বাবা বলেন, লম্পট নাহিদের বড় ভাই নাইম এবং মেজো ভাই শুভও একই মিলে চাকুরী করেন। তিনি লম্পট নাহিদ যে এমন ক্ষতি করতে পারে তা তারা ভাবতেও পারছেন না। বর্তমানে তার ছেলের পায়খানাও করতে পারছে না।
রাজবাড়ী সদর হাসপাতালের তত্ববধায়ক ডাঃ দীপক কুমার বিশ্বাস বলেন, শিশুটির পায়খানার রাস্তা ছিলে গেছে। যে কারণে রক্তপাত হয়েছে। যে কারণে তাকে হাসপাতালে ভর্তি রেখে চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হচ্ছে।
রাজবাড়ী থানার ওসি স্বপন কুমার মজুমদার জানান, মৌখিক ভাবে তিনি বিয়ষটি জেনেছেন, তবে আজ বিকাল পর্যন্ত লিখিত কোন অভিযোগ পাননি।

(Visited 136 times, 1 visits today)