দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌ-রুটের ফেরী থেকে বৃদ্ধের মাঝ পদ্মায় ঝাঁপ –

রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

ছেলে ও পুত্রবধূর সাথে ‘অভিমান’ করে চলন্ত ফেরি থেকে মাঝ পদ্মায় ঝাঁপ দিলেন আমজাদ গাজী (৮০) নামে এক বৃদ্ধ। আজ রবিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌ-রুটে শাহ মখদুম ফেরিতে পার হবার সময় এ ঘটনা ঘটে। নিখোঁজ আমজাদ গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলার আরোয়াকান্দি এলাকার মৃত ওয়াজেদ গাজীর ছেলে।
ফেরিযাত্রী ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বৃদ্ধর সাথে খারাপ ব্যবহার করা হচ্ছিল। এর একপর্যায়ে সম্ভবত ছেলে ও পুত্রবধূর সাথে অভিমান করে মাঝ পদ্মায় ঝাঁপ দেন তিনি। এ দৃশ্য অনেকেই দেখেন। এর পর থেকে ওই বৃদ্ধ নিখোঁজ রয়েছেন। ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা এরই মধ্য নদীতে অভিযান শুরু করেছেন।
জানা যায়. ঈদ শেষে আমজাদ ছেলে ও পুত্রবধূর সাথে ছেলের কর্মস্থল ঢাকার গাজীপুর যাচ্ছিল। কয়েক দিন আগে ওই বৃদ্ধর কাছে ছেলে রফিক গাজী কিছু টাকা জমা রাখে। টাকা ফেরত নেওয়ার সময় হিসাব চাইলে ছেলে ও ছেলের বউ দুর্ব্যবহার করে।
নিখোঁজের ছেলে রফিক গাজী জানান, ঈদের ছুটি শেষে বাবাকে নিয়ে আমরা আমার কর্মস্থল গাজীপুর যাচ্ছিলাম। আমরা দৌলতদিয়া ঘাট থেকে ফেরিতে করে নদী পার হচ্ছিলাম। ঘাট থেকে মাঝ নদীতে আসার পর বাবা নদীতে পড়ে যায়। তার স্বাস্থ্য বেশি মোটার কারণে হয়তো সাঁতরে উঠতে পারেননি। কীভাবে পড়ে গেল জানাতে চাইলে তিনি এড়িয়ে গিয়ে বলেন, আমরা অন্য পাশে ছিলাম।
মানিকগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের উপসহকারী পরিচালক মো. মিজানুর রহমান বলেন, ওই বৃদ্ধাকে নদীতে খোঁজার জন্য চারজন ডুবুরিসহ অন্তত ২০ জন ফায়ার সার্ভিসের সদস্য অভিাযান চালাচ্ছে। তবে নদীতে প্রবল স্রোতের কারণে অভিযান কিছুটা বিঘ্নিত হচ্ছে।

(Visited 157 times, 1 visits today)