দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুট দিয়ে নিবিঘ্নে পার হচ্ছেন কর্মস্থল মুখি যাত্রীরা –

শফিকুল শামিম. রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুট স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে নিবিঘ্নে পার হচ্ছেন কর্মস্থল মুুখি যাত্রীরা। লঞ্চ ও ফেরি ঘাটে কর্মমুখি মানুষের বাড়তি কোন দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে না। নেই যাত্রীবাহী পরিবহনের সারি। তবে আজ শনিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত প্রাইভেটকার ও মাক্রোবাসের চাপ বেশি দেখা গেছে।
ঈদের ছুটি শেষ। কর্মস্থল মুখি হচ্ছেন সাধারণ মানুষ। দক্ষিণ পশ্চিঞ্চলের রাজধানীর সাথে যোগাযোগের প্রধান দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুট। এই নৌরুটে কর্মমুখি মানুষের চাপ হয়। এখন পর্যন্ত দৌলতদিয়া লঞ্চ ও ফেরি ঘাটে বাড়তি কোন চাপ পরেনি। তবে ফেরি ঘাটে ব্যক্তিগত গাড়ী প্রাইভেটকার, মাক্রোবাস এর দীর্ঘ সারি রয়েছে। ফেরি ঘাটের জিরো পয়েন্ট থেকে মহাসড়কের প্রায় দেড় কিঃমিঃ ব্যক্তিগত গাড়ী প্রাইভেটকার, মাক্রোবাস ফেরি পারের অপেক্ষায় রয়েছে। যাত্রীবাহী বাস ফেরি পারের অপেক্ষায় রয়েছে প্রায় ৫০টি।
বিআইডব্লিউটিসি দৌলতদিয়া ঘাট শাখার ব্যবস্থাপক মোঃ শফিকুল ইসলাম জানান, দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে রোরো (বড়) ১১টি, কে-টাইপ (মাঝারী) ২ ও ইউটিলিটি (ছোট) সহ মোট ২০টি ফেরি এবং ২২টি বেসরকারি লঞ্চ চলাচল করছে। প্রাকৃতিক দুর্যোগ না হলে এবং ফেরি গুলো স্বাভাবিক ভাবে চলাচল করলে যানবাহন ফেরি পারে কোন সমস্যা হবে না। কর্মমুখি যাত্রীরা সহজে যেতে পারবেন।

(Visited 71 times, 1 visits today)