গোয়ালন্দে ৩ জন অসহায় ব্যক্তি পেলেন রিক্সা-ভ্যান –

শামীম শেখ, রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে গত রবিবার ইফতার ও দোয়ার অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনুষ্ঠানে ৩ জন হতদরিদ্র ব্যক্তিকে রিক্সা-ভ্যান প্রদান করা হয়।
গোয়ালন্দ বাজারের রোকন উদ্দিন সুপার মার্কেটে আনুষ্ঠানিক ভাবে রিক্সা-ভ্যানগুলো বিতরণ করা হয়। এ কাজে ১২ জন প্রবাসী আর্থিকভাবে সহযোগিতা করেছেন। এরা হলেন আমেরিকা প্রবাসি ডা: সিদ্দিকুর রহমান, সুজিত চক্রবর্তী, মো: রুহুল আমিন, রিয়াজ রহমান, সাইফুল ইসলাম, মো: রানা, রাশেদ, মামুন, গ্রীসের কামরুজ্জামান বাবু, আব্দুর রব, ইরাকের শাহীন ও সৌদ আরবের ওয়াসিম সিকদার।

অনুষ্ঠানটির বাস্তবায়নে সার্বিক সহযোগিতায় ছিল যুগান্তরের স্বজন সমাবেশের গোয়ালন্দের স্বজনরা। সহযোগিতা প্রাপ্তদের মধ্যে দু’জন রিক্সা চালক রয়েছেন। যাদের নিজস্ব রিক্সা নেই। ভাড়া রিক্সা চালিয়ে সংসারের ভার বহন করা যাদের জন্য খুবই কষ্টসাধ্য হচ্ছিল। ভ্যান প্রাপ্ত ব্যক্তি একজন আইসক্রীম বিক্রেতা। একটি ভ্যানের অভাবে যিনি কাঁধে আইসক্রীমের ভারী বাক্স বহন করে ফেরী করে আইসক্রীম বিক্রি করতেন।
রিক্সা প্রাপ্ত দু’জন হলেন গোয়ালন্দের ছোটভাকলা ইউনিয়নের কাটাখালি এলাকার বাসিন্দা মৃত-আতর শেখের ছেলে বাবু শেখ (৫২), গোয়ালন্দ পৌরসভার আলম চৌধুরী পাড়ার আইনদ্দিন শেখের ছেলে ইব্রাহিম শেখ (৫০) ও পৌরসভার আদর্শ গ্রামের মৃত জলিল শেখের ছেলে উজ্জ্বল শেখ (৪০)। অপরজন বাবু শেখ পেশায় আইসক্রীম বিক্রেতা। কাঁধে করে আইসক্রীমের পেটি বহন করে ঘুরে ঘুরে আইসক্রীম বিক্রি করে সংসার চালাতেন তিনি।
আয়োজনের প্রধান সমন্বয়ক আমেরিকা প্রবাসি সোহানুর রহমান সোহান জানান, আমরা যারা প্রবাসে থাকি চেষ্টা করি দেশের মানুষের জন্য ভাল কিছু করার। তা যদি সংখ্যায় খুব কমও হয়। এ চিন্তা থেকে কয়েকটি পরিবারের স্থায়ী আয়ের সংস্থান করে দেওয়ার জন্য লক্ষাধিক টাকার একটি তহবিল গঠন করি। এ টাকা দিয়ে রিক্সা-ভ্যানগুলো তৈরি করে দেওয়া হয়। সংখ্যায় কম হলেও আশা করি এই তিনটি পরিবারে কিছুটা স্বচ্ছলতা ফিরে আসবে।
রিক্সা-ভ্যান বিতরণ, ইফতার ও দোয়ার অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন প্রবাসি পরিবারের সদস্য ও যুগান্তর স্বজন সমাবেশের গোয়ালন্দের আহ্বায়ক নির্মল কুমার চক্রবর্তী, প্রবাসি পরিবারের সদস্য আব্দুল গণি খান, যুগান্তরের গোয়ালন্দ প্রতিনিধি শামীম শেখ, সাংবাদিক মেহেদুল হাসান আক্কাছ, স্বজন সদস্য সাজ্জাদ হোসেন, অহিদুল ইসলাম, তিতাস খান, সুজন ইসলাম, সোহাগ, আ: রশিদ, জুয়েল গায়ান, মামুনুর রশিদ, রফিকুল ইসলামসহ প্রবাসি পরিবারের সদস্য ও সুধীবৃন্দ।

(Visited 35 times, 1 visits today)