রাজবাড়ী সদর উপজেলায় আচরণবিধি ভঙ্গ করায় নৌকা প্যানেলের ৩ প্রার্থীর কর্মীকে জরিমানা –


রাজবাড়ী বার্তা ডট কম : আগামী ২৪ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে রাজবাড়ী সদর উপজেলা পরিষদের নির্বাচন। ওই নির্বাচনে নৌকা এবং নৌকা প্রতীকের প্যানেলভুক্ত হয়ে চেয়ারম্যান, ভাইস-চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান প্রার্থীর পক্ষে আচরনবিধি ভঙ্গ করে প্রচারনা করার অভিযোগে এক ব্যক্তির কাছ থেকে দশ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে। সেই সাথে প্রার্থী এবং প্রার্থীর প্রতিনিধিরা রিটানিং অফিসারের কাছে দুঃখ প্রকাশ করেছে। সেই সাথে আচরণবিধি আর ভঙ্গ করবেন না বলেও তারা ঘোষনা দিয়েছে।
রাজবাড়ীর জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট শাহ মোঃ সজিব জানান, ২০১৬ সালের উপজেলা পরিষদ (নির্বাচন আচরন) বিধিমালা ২১-এর ২ ভঙ্গ করে রাজবাড়ী সদর উপজেলার শহীদওহাবপুর ইউনিয়নের বড়নুরপুর এলাকায় শাজাহান সেখের ছেলে নাহিদ সেখ (৩৫) আজ সোমবার সকাল ৯টা থেকে ব্যাটারী চালিত অটো রিকশার ছাদে দুইটি প্রচার মাইক বের করে। তার ওই প্রচার মাইকে এক সাথে সদর উপজেলা পরিষদের নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী সফিকুল ইসলাম সফি, উড়ো জাহাজ প্রতীকের ভাইস-চেয়ারম্যান প্রার্থী এ্যাডঃ শফিকুল হোসেন এবং কলস প্রতীকের মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান প্রার্থী মীর মাহফুজা খাতুন মলি’র পক্ষে প্রচারনা চালানো হয়। ওই সংবাদ পেয়ে ভ্রাম্যমান আদালতের সদস্যরা একই দিন দুপুর ১টার দিকে ঘটনাস্থলে যান এবং নাহিদ সেখ সে সময় ওই তিন জন প্রার্থীর কর্মী হিসেবে পরিচয় প্রদান করে। যে কারণে নাহিদকে রাজবাড়ীর জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের অবস্থিত রিটানিং অফিসারের অফিসে নিয়ে আসা হয়। বিকালে উপজেলা পরিষদ (নির্বাচন আচরন) বিধিমালা ২১-এর ২ ভঙ্গ করায় ৩১-এর ১ বিধিতে নাহিদ সেখকে দশ হাজার টাকা জরিমানা এবং অনাদায়ে ৫দিনের কারাদন্ড প্রদান করা হয়। ওই সময়ই নাহিদ দশ হাজার টাকা প্রদান করায় তাকে মুক্তি দেয়া হয়। তবে ডেকে আনা হয় কলস প্রতীকের মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান প্রার্থী মীর মাহফুজা খাতুন মলি এবং নৌকা ও উড়ো জাহাজ প্রতীকের প্রার্থীদের প্রতিনিধিদের। তারা রিটানিং অফিসার ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আশেক হাসানের কাছে দুঃখ প্রকাশ করেন। সেই সাথে আচরণবিধি আর ভঙ্গ করবেন না বলেও তারা ঘোষনা দিয়েছেন।

(Visited 910 times, 1 visits today)