দুই কুলই হারালেন দৌলতদিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম মন্ডল –


রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

তৃতীয় ধাপে রাজবাড়ী সদর, বালিয়াকান্দি, পাংশা ও গোয়ালন্দ উপজেলায় আগামী ২৪ মার্চ উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ওই নির্বাচনে অংশ নিতে ১ জন ইউপি চেয়ারম্যান ও ২ জন মেম্বার পদত্যাগ করে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে অংশ গ্রহণের উদ্যোগ নিয়েছিলেন। আর তাদের সে উদ্যোগের ফলে ইতোমধ্যেই ইউনিয়ন পরিষদের পদ হারাতে হয়েছে। যে কারণে ওই ৩ জন চেয়ারম্যান ও মেম্বারের পদে উপ-নির্বাচন করার জন্য ইতোমধ্যেই নির্বাচন কমিশনে পত্র প্রদান করা হয়েছে।
পদত্যাগকারীরা হলেন, দক্ষিণ বঙ্গের প্রবেশদ্বার হিসেবে খ্যাত জেলার গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম মন্ডল, একই উপজেলার উজানচর ইউনিয়নের ১,২ ও ৩ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত নারী সদস্য নাজমা খাতুন এবং একই উপজেলার দেবগ্রাম ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড সদস্য গিয়াস উদ্দিন সেখ।
জানাগেছে, গোয়ালন্দ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের জন্য দলীয় প্রার্থীতা আহবান করা হলে আওয়ামীলীগ থেকে বেশ ক’জন প্রার্থী আবেদন করেন। তাদের অংশগ্রহণে তৃণমূলের ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। এতে দৌলতদিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম মন্ডল সর্বোচ্চ ভোট পেয়ে প্রথম, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম মন্ডল দ্বিতীয় এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ নুরুজ্জামান মন্ডল তৃতীয় অবস্থানে ছিলেন। চতুর্থ অবস্থানে ছিলেন, বর্তমান উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আঃলীগের সদস্য মো. নুরুল ইসলাম। পরবর্তীতে কেন্দ্র থেকে মনোনয়ন পান মো. নুরুল ইসলামকেই দলীয় মনোনয়ন প্রদান করা হয়।
সংশ্লিষ্ঠরা জানিয়েছেন, চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনের লক্ষে দলীয় নেতাদের ভোটে প্রথমস্থান অর্জন করার পর পরই উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম মন্ডল গত ২১ ফেব্রুয়ারী তিনি দৌলতদিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদ থেকে পদত্যাগ করেন। সেই সাথে ওই পদত্যাগপত্র গোয়ালন্দ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের গ্রহণ এবং ২৪ ফেব্রুয়ারী তা প্রজ্ঞাপন হিসেবে জারি করেন। একই ভাবে ভাইস-চেয়ারম্যান পদে উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে প্রার্থী হবার জন্য একই উপজেলার উজানচর ইউনিয়নের ১,২ ও ৩ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত নারী সদস্য নাজমা খাতুন এবং একই উপজেলার দেবগ্রাম ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড সদস্য গিয়াস উদ্দিন সেখ স্ব স্ব ইউপি চেয়ারম্যানের কাছে পদত্যাগপত্র প্রদান করেন। ওই পদত্যাগপত্র গ্রহণের পর তা গত ২৪ ফেব্রুয়ারী তা প্রজ্ঞাপন হিসেবে জারি করা হয়। যদিও পদত্যাগকারী ওই দুই মেম্বার ইতোমধ্যেই ভাইস-চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হয়ে প্রতিদ্বন্দীতায় লিপ্ত হয়েছেন।
দৌলতদিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম মন্ডল জানান, দলীয় নেতাদের ভোটে তিনি প্রথমস্থান অর্জন করায় সংগত কারণেই উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদ প্রার্থী হিসেবে অংশ গ্রহণের আকাংখা তার জাগে। যার অংশ হিসেবেই দৌলতদিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন। সেই সাথে নির্বাচন কমিশন থেকে চেয়ারম্যান পদের মনোয়নপত্রও তিনি সংগ্রহ করেছিলেন। তবে পরবর্তীতে তাকে আর দলীয় প্রার্থী হিসেবে ঘোষনা করা হয়নি। যে কারণে তিনি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করছেন না।
রিটানিং অফিসার ও রাজবাড়ীর অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ আশেক হাসান জানান, ওই ৩ জন চেয়ারম্যান ও মেম্বারের পদত্যাগ পত্র গ্রহণ করে প্রজ্ঞাপনও জারি করা হয়েছে। সেই সাথে ওই পদ গুলো শূন্য দেখিয়ে উপ-নির্বাচন করার জন্য জেলা নির্বাচন অফিসারকে পত্র প্রদান করা হয়েছে।

(Visited 2,709 times, 1 visits today)