থামলেন বাবলু, গোয়ালন্দে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান হচ্ছেন নুরুল ইসলাম –

আজু সিকদার , রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান মো. নুরুল ইসলাম। তৃতীয় ধাপে আগামী ২৪ মার্চ এ নির্বাচন হওয়ার কথা রয়েছে।
গোয়ালন্দ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী হামিদুল হক বাবলু তার প্রার্থীতা প্রত্যাহার করে নেওয়ায় চেয়ারম্যান পদে একক প্রার্থী হিসেবে বহাল রয়েছে মো. নুরুল ইসলাম। আগামী ৭ মার্চ প্রত্যাহারের শেষ দিন নির্ধারণ ছিল এবং পরদিন ৮ মার্চ প্রতীক বরাদ্দ হওয়ার কথা। কিন্তু চেয়ারম্যান পদে একক প্রার্থী থাকায় বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় তার নির্বাচিত হওয়ার বিষয়টি এখন শুধু সময়ের ব্যাপার মাত্র।
রাজবাড়ী জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি এ্যাডঃ খন্দকার হাবিবুর রহমান বাচ্চু জানান, মহাজোটের শরীক হিসেবে স্থানীয় রাজনীতিতে সহাবস্থান বজায় রাখতে তারা তাদের প্রার্থীকে প্রার্থীতা প্রত্যাহার করে নিয়েছেন তারা। তবে নির্বাচন কর্মকর্তা বরাবর স্বাক্ষরিত প্রত্যাহার পত্রে শারিরীক ও ব্যক্তিগত সমস্যার কারণ দেখিয়ে প্রার্থীতা প্রত্যাহারের আবেদন করেছেন জাতীয় পার্টির প্রার্থী হামিদুল হক বাবলু।

গত সোমবার রাতে প্রার্থী হামিদুল হক বাবলু বলেন, গোয়ালন্দ উপজেলা পরিষদে চেয়ারম্যান পদে দুই জন প্রার্থীর মনোয়নপত্র বৈধ বলে ঘোষনা করেন রিটানিং অফিসার। আর ওই দুই প্রার্থীর মধ্যে তিনি ছিলেন অন্যতম একজন প্রার্থী। অনেক আশা নিয়ে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে যেতেও তিনি শুরু করেছিলেন। তবে শেষটা তার ভালো হলো না। তার পক্ষে গণজোয়ার থাকলেও তিনি তার প্রার্থীতা ধরে রাখতে পারলেন না। তাকে অনেকটা বাধ্য হয়ে প্রার্থীতা প্রত্যাহার করতে হলো।
তবে আঃলীগের প্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান মো. নুরুল ইসলাম জানান, তার সাথে জাপা প্রার্থী বাবলুর দেখাও হয়নি। তার পক্ষে গণজোয়ার রয়েছে তাই তিনি ভোটারদের দ্বারে দ্বারে যাচ্ছেন। বাবলু কেন কি কারণে প্রার্থীতা প্রত্যাহারের আবেদন করেছেন তা তার জানা নেই।
রিটানিং অফিসার ও জেলা নির্বাচন অফিসার হাবিবুর রহমান জানান, জাপা প্রার্থী বাবলু গত সোমবার তার কার্যালয়ে লিখিত ভাবে মনোনয়পত্র প্রত্যাহারের পত্র দিয়েছেন। ফলে গোয়ালন্দ উপজেলা পরিষদে আর কোন প্রার্থী না থাকায় বিনাপ্রতিদ্বন্দীতায় আঃলীগের প্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান মো. নুরুল ইসলাম বিজয়ী হতে চলেছেন।
এদিকে দলীয় প্রার্থীতা আহবান করা হলে আওয়ামীলীগ থেকে বেশ ক’জন প্রার্থী আবেদন করেন। তাদের অংশগ্রহণে তৃণমূলের ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। এতে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম মন্ডল সর্বোচ্চ ভোট পেয়ে প্রথম, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম মন্ডল ২য় এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ নুরুজ্জামান মন্ডল ৩য় অবস্থানে ছিলেন। চতুর্থ অবস্থানে ছিলেন মো. নুরুল ইসলাম। পরবর্তীতে কেন্দ্র থেকে মনোনয়ন পান মো. নুরুল ইসলাম।

(Visited 235 times, 1 visits today)