রাজবাড়ীতে দশ্যুতার ঘটনায় গ্রেপ্তার ১, জেলা পুলিশের উদ্ধর্তন কর্মকর্তাদের ঘটনাস্থল পরিদর্শন –

রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

রাজবাড়ী সদর হাসপাতালের এ্যাম্বুলেন্স চালক আব্দুল্লাহ আল মাসুদের বাড়ীতে দশ্যুতার ঘটনা ঘটেছে। দশ্যুরা তার বাড়ীর সকলকে বেঁধে স্বর্ণালংকার, নগদ টাকাসহ ৮ লাখ ৭৬ হাজার টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃতকে আজ বৃহস্পতিবার আদালতে সোর্পদ করা হয়েছে। এ্যাম্বুলেন্স চালক আব্দুল্লাহ আল মাসুদ রাজবাড়ী সদর হাসপাতাল সংলগ্ন সজ্জনকান্দা গ্রামের মফিজ উদ্দিনের ছেলে।
ওই ঘটনার পর গত বুধবার দুপুরে রাজবাড়ীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ রাকিব খান, রাজবাড়ী থানার ওসি স্বপন কুমার মজুমদার, ওসি (তদন্ত) আব্দুল্লাহ আল তায়েবীর, সদর ফাঁড়ির ইন্সেপেক্টর মুক্তার হোসেনসহ জেলা পুলিশের উদ্ধর্তন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
জানাগেছে, গত মঙ্গলবার ভোর রাতে চার জনের একদল মুখ বাঁধা দূর্বৃত্ত তার রান্না ঘরের জানালার গ্রীল কেটে ভেতরে প্রবেশ করে। তারা প্রথমে ১৬ বছর বয়সী আব্দুল্লাহ আল মাসুদের ছেলে সিফাতকে তার গায়ের গেঞ্জি দিয়ে বেঁধে ফেলে এবং সিফাতকে জিম্মি করে মাসুদ, তার স্ত্রী শামিমা আক্তার ও ৮ বছর বয়সী মেয়েকে ডেকে তোলো। সেই সাথে তারা তাদেরও বেঁধে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে।
এ্যাম্বুলেন্স চালক আব্দুল্লাহ আল মাসুদ জানান, প্রায় ২৫ মিনিট দূর্বৃত্তরা আলমারি ভেঙ্গে ৫ লাখ ৯৮ হাজার টাকা মূল্যের স্বর্ণালংকার, নগদ ৯৮ হাজার টাকা, ১লাখ ৩৫ হাজার টাকা মূল্যের ৩টি মোবাইল ফোন, ৪৫ হাজার টাকা মূল্যের ল্যাপটপসহ ৮ লাখ ৭৬ হাজার টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় তিনি বাদী হয়ে অজ্ঞাত চার জন দূর্বৃত্তকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেছেন।
এ মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও রাজবাড়ী থানার এসআই হিরণ কুমার বিশ^াস জানান, দূর্বৃত্তদের গ্রেপ্তার ও লুষ্ঠিত মালামাল উদ্ধারের চেষ্টা অব্যাহত আছে। এ ঘটনায় রাজবাড়ীর সদর উপজেলার কাজিবাদা গ্রামের আলমগীর নামে এক দূর্বৃত্তকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

(Visited 592 times, 1 visits today)