বালিয়াকান্দির মুন্সী ইয়ার উদ্দিন আহম্মেদ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে খোলা আকাশের নিচে পাঠদান –

সোহেল রানা, রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

 

রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার নারুয়া বাজারের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত মুুন্সী ইয়ার উদ্দিন আহম্মেদ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় নানা সমস্যায় জর্জরিত হয়ে পড়েছে। চেয়ার, বেঞ্চ সংকট, কক্ষ সংকটের কারণে খোলা আকাশের নিচে ক্লাস নিতে হচ্ছে।
শনিবার সকাল ১০টার দিকে নারুয়া মুন্সী ইয়ার উদ্দিন আহম্মেদ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে গিয়ে দেখাযায়, ২০১৯ সালের এস,এস,সি পরীক্ষার্থীদের বিদ্যালয় বাউন্ডারীর মধ্যে মাঠের ভিতর বেঞ্চ দিয়ে খোলা আকাশের নিচে ক্লাস নেওয়া হচ্ছে।
স্কুলের বাংলা শিক্ষক মিজানুর রহমান জানান, স্কুলে কক্ষ সংকটের কারণে আপাত ২০১৯ সালের এস,এস,সি পরীক্ষার্থীদের খোলা আকাশের নিচেই ক্লাস নিতে হচ্ছে। ক্লাস নিতে অসুবিধা হলেও তা করতে হচ্ছে।
শিক্ষার্থী তহুরা খাতুন, প্রমি, জুথি, সুমাইয়া জানায়, স্কুলে শিক্ষার্থী বেশি থাকলেও সে অনুযায়ী বেঞ্চ নেই। অনেক সময় ক্লাসে বেঞ্চের অভাবে দাড়িয়ে ক্লাস করতে হয়। কক্ষ সংকট থাকার কারণে আমাদের খোলা আকাশের নিচে ক্লাস নিচ্ছে। তারা দ্রুত বেঞ্চ, চেয়ার, টেবিল প্রদান, স্কুলের বাউন্ডারী নির্মাণ করাসহ ভবন নির্মাণের দাবী জানায়।
মুন্সী ইয়ার উদ্দিন আহম্মেদ বালিকা বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক কামরুল হাসান জানান, স্কুলে একটি একতলা ভবনে ৩টি কক্ষ, ২টি অফিস রুম আর একটি ক্লাস রুম, ১টি টিন সেট ঘরে ৩টি কক্ষ, আরেকটি ঘর উত্তোলন হচ্ছে তবে সে ৪টি কক্ষ এখনো সচল নয়। স্কুলে ৬ষ্ট শ্রেনীতে ৮০জন, ৭ম শ্রেণীতে ৭৩জন, ৮ম শ্রেণীতে ৭৫জন, নবম শ্রেণীতে ৪০জন এবং দশম শ্রেনীতে ৪৬জন শিক্ষার্থী রয়েছে। কক্ষ গুলো ছোট হওয়ার কারণে শিক্ষার্থীদের গাদাগাদি করে বসাতে হয়। তারপর বেঞ্চ সংকট রয়েছে। এ কারণে খোলা আকাশের নিচেই ক্লাস নিতে হচ্ছে। বিষয়টি নারুয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ আব্দুস সালাম মাষ্টারের নজরে আনলে তিনি ৪টি রুম সচলের উদ্যোগ নিয়েছেন। স্কুলের বেহাল অবস্থার বিষয়টি বিভিন্ন দপ্তরে অবগত করা হয়েছে।
নারুয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ আব্দুস সালাম মাষ্টার জানান, মুন্সী ইয়ার উদ্দিন আহম্মেদ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়টি লেখাপড়ার মান ভালো। তাদের কক্ষ সংকট ও বেঞ্চ সংকট রয়েছে। ইতিমধ্যেই অচল ৪টি কক্ষ সচল করতে কাজ শুরু করা হয়েছে। বেঞ্চ সংকট দুর করতেও পদক্ষেপ গ্রহন করা হয়েছে। আশা করছি দ্রুতই এ সমস্যা থেকে পরিত্রান মিলবে।

(Visited 45 times, 1 visits today)