রাজবাড়ী থানা পুলিশের অভিযান- “খড়ের গাদার গর্তে লুকিয়েও রক্ষা পেল না তৈয়ব” –

রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

একাধিক মাদক মামলার পলাতক আসামি তৈয়ব মিজি (৩০)। সে মাদক ব্যবসা অব্যাহত রাখার পাশাপাশি পুলিশের হাত থেকে রক্ষা পেতে খড়ের গাদার মধ্যে গর্ত তৈরী করে আতœগোপন করে আসছিল। তবে ওই গর্তের সন্ধান পেয়ে যায় পুলিশ, আর সেখান থেকেই গ্রেপ্তার করা হয় তৈয়ব মিজিকে। সেই সাথে তার কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় গাঁজা ও ইয়াবাসহ তা সেবন করার উপকরণ। তৈয়ব রাজবাড়ী সদর উপজেলার বসন্তপুর ইউনিয়নের কোলা গ্রামের কাদের মিজি’র ছেলে।
রাজবাড়ী থানার এসআই আরিফুজ্জামান বলেন, তৈয়ব একজন শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী। তার বিরুদ্ধে একাধিক মামলাও রয়েছে। যে কারণে তাকে গ্রেপ্তার করার চেষ্টা ছিলো অব্যাহত। দিনের বেলায় এলাকায় ঘোড়া-ফেরার তথ্য তারা পেলেও রাতে তার অবস্থায় কোথায় তা তারা বুঝতে পারছিলেন না। যে কারণে তাকে গ্রেপ্তার করতে নানা ধরণের চেষ্টা তারা শুরু করেন। যার অংশ হিসেবে গত বৃহস্পতিবার রাতে তৈয়বের বাড়ীতে অভিযান চালানো হয়। তবে সে বাড়ীতে ছিলো না। এর কিছু সময় পর তারা বাড়ীর অদূরে মাঠের মধ্যে একটি খড়ের গাদা দেখতে পান। পুলিশ সদস্যরা ওই খড়ের গাদার কাছে যান এবং গাদাটির চারপাশে তল্লাশী কার্যক্রম পরিচালনার এক পর্যায়ে তাদের সন্দেহ হয়। তারা ওই খড়ের গাদার উপরে উঠে দেখতে পান তার মাঝে সুকৌশলে একটি গর্ত তৈরী করা হয়েছে। যে গর্তের উপরের অংশে বাঁশ দিয়ে তার উপড়েও খড় রাখা হয়েছে। ভাল ভাবে খেয়াল না করলে বাইরে থেকে কোন ভাবেই বোঝার উপায় নেই, সেখানে গর্ত রয়েছে। তারা বাঁশের উপর থেকে খড় সড়িয়ে টর্চ লাইটের আলোয় দেখতে পান মানুষের মাথা। এর পরই সেখান থেকে গ্রেপ্তার করা হয় তৈয়বকে। সেই সাথে তার কাছ থেকে ১০০ গ্রাম গাঁজা ও ৫২ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেও তা সেবনের সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় আজ শুক্রবার দুপুরে রাজবাড়ী থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।
জানাগেছে, ওই অভিযানে নেতৃত্বদেন রাজবাড়ী থানার ওসি স্বপন কুমার মজুমদার, ইন্সেপেক্টর (তদন্ত) আব্দুল্লাহ আল তায়েবীর, এসআই আরিফুজ্জামান, এএসআই সানোয়ার, এএসআই ইউসুফসহ সঙ্গীয় পুলিশ সদস্যরা।

(Visited 964 times, 24 visits today)