পাংশার ৩০৮ জন সুবিধা ভূগীর মধ্যে নির্মিত ঘরের চাবী হস্তান্তর –

মাসুদ রেজা শিশির, রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার সকল সেক্টরে সমান ভাবে উন্নয়ন কর্মকান্ড পরিচালনা করে আসছেন,আমাদের সরকারের আমলেই প্রথম ১৯৯৬ সালে আশ্রয়ন প্রকল্প শুরু হয়েছিল,বর্তমানে বিশ্বের ইতিহাসে বিরল সরকার গৃহহীন মানুষদের গৃহ নির্মার করে দিচ্ছেন,আগামীতে আরো বেশী করে গৃহ নির্মান করা হবে। সরকার সকল পর্যায়ের নাগরিকের কথা ভেবে এ সকল উন্নয়ন কর্মকান্ড চালিয়ে আসছেন,আমাদের পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতে এখনও অনেক মানুষ গৃহহীন রয়েছে তারা বিভিন্ন ভাবে জীবনযাপন করছেন আমরা আমাদের সরকার সুবিধা বঞ্চিত মানুষের মধ্যে উন্নয়নের সুফল ছড়িয়ে দিতে নানা কর্মসূচী পালন করে আসছেন এ উন্নয়নের ধারা অব্যহত রাখতে পূনরায় জননেনী শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় আনতে হবে। পাংশা উপজেলায় ২বারে ৫১০টি গৃহহীন মানুষের গৃহ নির্মান করে দিয়েছে সরকার যাদের কাছ থেকে একটি পয়সাও নেওয়া হয়নি । বুধবার দুপুরে পাংশা উপজেলা শিল্পকলা একাডেমিতে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে ২০১৭-১৮ অর্থ বছরের আশ্রায়ন -২ প্রকল্পের অধীনে ”যার জমি আছে ঘর নেই তার নিজ জমিতে গৃহ নির্মাণ” কাজের চাবী হস্তান্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাজবাড়ী জেলা আ.লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ জিল্লুল হাকিম এমপি এসব কথা বলেন। রাজবাড়ীর জেলা প্রশাসক মোঃ শওকত আলীর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন পাংশা উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ ফরিদ হাসান ওদুদ,পাংশা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম,মৌটার ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ হাবিবুর রহমান প্রামানিক প্রমুখ। এসময় পাংশা উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোহাম্মদ মিজানুর রহমান, উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা শ্যামল কুমার বিশ্বাস,মাছপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান খন্দোকার সাইফুল ইসলাম বুড়ো,বাবুপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান ইমান আলী সরদার,হাবাসপুর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল আলীম মন্ডল,শরিসা ইউপি চেয়ারম্যান আজমল আল বাহার বিশ্বাস,যশাই ইউপি চেয়ারম্যান অধ্যাপক মোঃ সিদ্দিকুর রহমান,কসবামাজাইল ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ কামরুজ্জামান খান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। এসময় আনুষ্ঠানিক ভাবে পাংশা উপজেলার ১০ টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভার ৩০৮ জন সুবিধা ভূগীর মধ্যে নির্মিত ঘরের চাবী হস্তান্তর করা হয়।

(Visited 70 times, 1 visits today)