দৌলতদিয়ায় বেপরোয়া বাস কেড়ে নিল ২ স্কুলছাত্রীর প্রাণ, অবরোধ-অগ্নিসংযোগ-

আজু সিকদার, রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :


ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের দৌলতদিয়া মডেল হাইস্কুলের সামনে আজ শনিবার দুপুরে বেপরোয়া দুরপাল্লার ঈগোল পরিবহনে বাস কেড়ে নিল নবম শ্রেণির দুই স্কুল ছাত্রীর তরতাজা প্রাণ। এ ঘটনায় বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী মহাসড়ক অবরুদ্ধ করে রেখে ব্যাপক যানবাহন ভাঙচুর ও একটি গোল্ডেন লাইন পরিবহনের বাসটি পুরিয়ে দেয়।
নিহতরা হলো রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া ইউনিয়নের যদু ফকির পাড়া গ্রামের আব্দুস ছালাম প্রামানিকের মেয়ে চাঁদনী আক্তার ও অমর আলী মোল্লার পাড়া গ্রামের জামাল বেপারীর মেয়ে জাকিয়া সুলতানা কেয়া। তারা দু’জনই দৌলতদিয়া মডেল হাইস্কুলের নবম শ্রেণির ছাত্রী।
প্রত্যক্ষদর্শী, নিহত স্কুল ছাত্রীর শিক্ষক ও সহপাঠীরা জানায়, শনিবার বেলা ২টা থেকে শুরু হওয়া নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের মূল্যায়ন পরীক্ষায় অংশ নিতে ওই দুই শিক্ষার্থী বাড়ি থেকে রিক্সাযোগে এসে মহাসড়কের নিজ বিদ্যালয়ের সামনে নামে। গুড়ি গুড়ি বৃষ্টির মধ্যে তারা ছাতা নিয়ে মহাসড়ক পারাপার হওয়ার সময় ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা ফরিদপুর গামী ঈগোল পরিবহনের একটি বাস বেপরোয়া গতিতে এসে তাদের চাপা দেয়। এতে তারা গুরুতর আহত হয়। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক চাঁদনীকে মৃত ঘোষনা করে। এসময় সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় জাকিয়া সুলতানার মৃত্যু হয়।
গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আরএমও ডা. সাহিদা পারভীন জানান, হাসপাতালে আনার পূর্বেই একজনের মৃত্যু হয়েছিল, অপরজনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরের প্রাক্কালে মৃত্যু হয়।
এদিকে এ ঘটানার পর বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী ঢাকা-খুলনা মহাসড়ক অবরোধ সৃষ্টি করে যানবাহনে ভাঙচুর চালায়। একটি বাসে অগ্নিসংযোগ করে বিক্ষুব্ধরা। এসময় দুরপল্লার বাস পূর্বাশা পরিবহনের চালক চুয়াডাঙ্গা জেলার ইসরাইল মল্লিক গুরুতর আহত হয়। তাকে গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভতি করা হয়েছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মহাসড়ক অবরোধ করে রেখেছে বিক্ষুব্ধরা। এতে শত শত বিভিন্ন যানবাহন আটকা পড়েছে।

(Visited 730 times, 1 visits today)