রাজবাড়ীর দৌলতদিয়ায় ৩ কারণে প্রতিনিয়ত হচ্ছে যানজট –

রুবেলুর, ইমরান, আতিয়ার, রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

দেশের গুরুত্বপূর্ণ ২১ জেলার প্রবেশদ্বার দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটের পদ্মা নদীতে ¯্রােত, নাব্য সংকট ও শিমুলিয়া-কাঠালবাড়ী নৌরুটের বাড়তি যানবাহনের চাপে প্রতিনিয়তই রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া প্রান্তে যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে।
রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া দিয়ে প্রতিদিন হাজার হাজার ছোট-বড় যানবাহন ও যাত্রীরা ফেরিতে নদী পারাপার হন আর এতে সরকারের রাজস্ব আয় হয় লক্ষ লক্ষ টাকা। প্রতিবছর শুষ্ক মৌসুমের শুরু ও নদীতে পানি কমতে শুরু করণে ¯্রােত সহ দেখা দেয় নাব্য সংকট। কিন্তু নাব্য সংকট নিরসনে বিআইডব্লিউটিএ প্রতিবছর ড্রেজিং কার্যক্রম চালালেউ ভোগান্তি থেকেই যাচ্ছে। এ সময় ফেরি চলাচল ব্যাহত হচ্ছে আর এ কারণেই পন্যবাহী ট্রাকগুলোকে দিনের পর দিন ও যাত্রবাহী বাসকে ঘন্টার পর ঘন্টা আটকে থাকতে হচ্ছে সিরিয়ালে। এতে করে চরম ভোগান্তি পড়েন চালক ও যাত্রীরা। ফেরি চলাচল স্বাভাবিক রাখতে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে ড্রেজিং কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে বিআইডব্লিউটিএ।
এদিকে নব্যতা সংকটের কারণে শিমুলিয়া-কাঠালবাড়ী রুটের যানবাহনের বাড়তি চাপ রয়েছে দৌলতদিয়ায়। বর্তমানে রুটে ছোট-বড় ১৮টি ফেরি চলাচল করছে।
ঢাকামুখি যাত্রীারা জানান, দৌলতদিয়া প্রান্তে এসে তারা সিরিয়ালে ঘন্টার পর ঘন্টা বাসে বসে আছেন। পরিবারের সদস্যদের নিয়ে প্রচন্দ্র গরমে অতিষ্ট হয়ে পড়েছেন। সিরিয়ালে আটকে থেকে বাথরুম, খাওয়া-দাওয়া সমস্যাসহ নানান সমস্যায় পড়ছেন। শুনেছেন নদীতে চর জাগা ও ¯্রােতের কারণে ফেরি চলাচল সমস্যা হচ্ছে। কিন্তু ড্রেজিং কার্যক্রমও চলছে , তারপরও ঘন্টার পর ঘন্টা বসে থাকছেন। এখন ফেরি কম চলছে নাকি অন্য সমস্যা তা বুঝতে পারছেন না। তবে যে সমস্যাই হোক সে সমস্যার সমাধান হওয়া জরুরী প্রয়োজন। এছাড়া দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া রুটে দ্বিতীয় পদ্মা সেতু হলে তাদের মত যাত্রীদের জন্য সুবিধা হয়। দৌলতদিয়ার সমস্যা গুলো অনেক সময় কৃত্তিম ভাবে তৈরি করা হয়। তাদের ভোগান্তি লাগবে যথাযথ কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।
চালকরা জানান, নদীতে চর জাগা, ¯্রােতের কারণে নাকি ফেরি চলাচল ব্যাহত হচ্ছে এর উপর শিমুলিয়া-কাঠালবাড়ী রুটের বাড়তি যানবাহনের চাপে দৌলতদিয়ায়। যার কারণে দৌলতদিয়া প্রান্তে তাদের দিনের পর দিন ও ঘন্টার পর ঘন্টা নদী পারের অপেক্ষায় থাকতে হচ্ছে। এতে করে ভোগান্তির পাশাপশি সঠিক সময়ে মালামাল পরিবহন করতে না পাড়ায় লোকসানের মুখে পড়ছেন। খরচ বেড়ে যাচ্ছে অনেক। তারা দ্রুত এ সমস্যার সমাধান চান।
বিআইডব্লিউটিএ দৌলতদিয়া, পাটুরিয়া ও আরিচা ঘাটের উপ-সহকারী প্রকৌশলী মোঃ শাহ-আলম জানান, পদ্মা নদীর দৌলতদিয়া এলাকায় পানি বৃদ্ধি ও হ্রাসের সাথে মিল রেখে ফেরি ঘাট গুলো উঠা-নামা করানো হয়। এছাড়া তারা নাব্যতা সংকট নিরসনে দৌলতদিয়া ঘাট এলাকায় ড্রেজিং কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছেন । দৌলতদিয়া প্রান্তে ৩ ড্রেজিং এর মাধ্যমে ও পাটুরিয়াও ড্রেজিং চলছে। নাব্যতা ঠিক রাখতে পানি না বাড়া পর্যন্ত এ ড্রেজিং কার্যক্রম চলবে।

(Visited 63 times, 1 visits today)