রাজবাড়ীতে ইলিশ ধরার সাথে জড়িত জেলেদের মাঝে খাদ্যশস্য বিতরণ –

রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

মা ইলিশ আহরণ নিষিদ্ধ সময়ে বিরত থাকা জেলেদের জন্য বিশেষ ভিজিএফ খাদ্যশস্য (চাউল) বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন ও সচেতনামূলক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
রোববার সকাল ১১টার দিকে রাজবাড়ী সদর উপজেলা মৎস্য অধিদপ্তরের আয়োজনে পদ্মা নদী সংলগ্ন গোদার বাজার সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় এ চাউল বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন ও সভা অনুষ্ঠিত হয়।
এ সময় সদর উপজেলার মিজানপুর ইউনিয়নের ইলিশ ধরার সাথে সম্পৃক্ত কার্ডধারী ৪৭১ জন জেলেকে ২০ কেজি করে চাউল দেওয়া হয়। পর্যায়ক্রমে সদর উপচেলার নদী তীরবর্তী এলাকার ইলিশ ধরার সাথে সম্পৃক্ত ২ হাজার ২৭১ জন কার্ডধারী জেলেদের এ চাউল বিতরণ করা হবে।
জানাগেছে, ইতিমধ্যে জেলা মৎস্য অধিদপ্তর মা ইলিশ রক্ষার জন্য জেলার প্রতিটি অঞ্চলে মাইকিং ও বিভিন্ন সচেতনামূলক সভা করেছেন।
আজ থেকে ২৮ অক্টোবর পর্যন্ত ২২ দিন ইলিশ ধরা বন্ধের আহ্বান এবং এ সময়ে জেলেদের নদীতে পাওয়া গেলে আইনানুগ ব্যবস্থ্যা নেওয়া হবে বলে জানান জেলা প্রশাসন ও জেলা মৎস্য অধিদপ্তর।
এতে জেলা প্রশাসক মোঃ শওকত আলীর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী ও রাজবাড়ী ১ আসনের এমপি কাজী কেরামত আলী।
সদর উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ সাঈদ আহম্মেদ এর সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ মজিনুর রহমান, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানে ্যাডঃ এমএ খালেক, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ সাঈদুজ্জামান খান, মিজানপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ আতিয়ার রহমান, জেলা মৎস্য সমবায় সমিতির সভাপতি সচিন্দ্র নাথ সরকার প্রমূখ।
উল্লেখ্য, জেলায় ৯ হাজারের বেশি মৎস্যজীবি মাছ ধরার সাথে সম্পৃক্ত থাকলেউ ইলিশ মাছ ধরার সাথে প্রায় ৪ হাজার ৬৪০ জন। এদের প্রত্যেকে দেওয়া হচ্ছে ২০ কেজি করে চাউল। গত বছর ইলিশ মাছ ধরার দায়ে ৪১০ জনকে জেলেকে জেল দেওয়া হয়েছিল।

(Visited 40 times, 1 visits today)