রাজবাড়ীতে বিএনপি’র ৩২ নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে মামলা –

রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

গাড়ী ভাংচুর ও একাধিক পুলিশ সদস্যকে মারপিটের অভিযোগে রাজবাড়ী থানায় জেলা বিএনপি’র ৩২ জন নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। ওই মামলায় জেলা বিএনপি’র সিনিয়র দুই জন নেতাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। মামলাটি দায়ের করেছেন, রাজবাড়ী থানার এসআই আবুল কালাম।
গ্রেপ্তারকৃতরা হলো, জেলা বিএনপি’র সহ-সভাপতি এ্যাডঃ আসাদুজ্জামান লাল ও জেলা বিএনপি’র সাবেক আহবায়ক নইম আনসারী।
এ মামলার অন্যান্য আসামিরা হলো, এহসানুল করিম হিটু চৌধুরী, এবিএম মঞ্জুরুল আলম দুলাল, কাউছার, আকমল, মনি, রফিকুল ইসলাম ফারুক, শাহিন উড়া শাহিন, গোলাম মোর্তুজা, ফারুক, রাজু, খালেক, মামুন, আব্দুল মজিদ, খায়রুল ইসলাম জনি, মিরাজ, আব্দুল লতিফ, বেলায়েত হোসেন, রবিউল ইসলাম রবি, আনিচ পাটোয়ারী, মজিবুর রহমান, আরজু, মিলন, আব্দুল মালেক, তকদীর, আজাদ, আরিফুর রহমান শামীম, হাসান, সহিদুল, এএকএ সবুর শাহিন ও ফারুকসহ অজ্ঞাতনামা আরো ২০/২৫ জন।
এজাহার সূত্রে জানাগেছে, জেলা শহরের আজাদী ময়দান এলাকায় ডিউটিরত অবস্থায় পুলিশ সদস্যরা জানতে পারেন সেখানকার পাকারাস্তার উপর বিএনপি ও জামাতের নেতা-কর্মীরা লাঠিশোঠা নিয়ে অবস্থান নিয়ে বিভিন্ন উস্কানীমূলক শ্লোগান দেয়াসহ যানচলাচল বাঁধাগ্রস্থ করছেন। ওই সংবাদের ভিতিত্বে পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থলে আসেন এবং নিষেধ করেন। তবে তারা ওই নিষেধ উপেক্ষা করে ২/৩টি রিকশা ভাংচুর করে। ওই সময় উপস্থিত জনতা আতংকগ্রস্থ হয়ে পড়ে। সে সময় ইটের আঘাতে কনস্টেবল হেদায়েত ইসলাম ও রফিকুল ইসলাম জখমপ্রাপ্ত হন। আহতদের রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হয়েছে।
রাজবাড়ী থানার ওসি তারিক কামাল বলেন, এ মামলায় দুই জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অন্যান্য আসামিদের গ্রেপ্তার করতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।
এঘটনার তীব্র নিন্দা ও গ্রেপ্তার হওয়া দুই নেতার মুক্তির দাবী জানিয়ে রাজবাড়ী জেলা বিএনপি’র সভাপতি ও সাবেক এমপি আলী নেওয়াজ মাহমুদ খৈয়ম জানান, কারাগারে আদালত হস্তান্তরের প্রতিবাদে এবং খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবীতে কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে গত শনিবার বিকালে রাজবাড়ীতে প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করা হয়। জেলা বিএনপি’র কার্যালয়ের বারান্দার সিঁড়িতে দাঁড়িয়ে নেতা-কর্মী দলীয় কার্যক্রম শুরু করতেই রাজবাড়ী থানা পুলিশের সদস্যরা সেখানে আসেন এবং ব্যানার সিনিয়ে নেয়ার পাশাপাশি তারা সিনিয়র দুই জন নেতাকে আটক করেন। অথচ মামলায় রিকশা ভাংচুর, পুলিশকে আহত করার কথা বলা হয়েছে। যা সম্পূর্ণভাবে সাজানো এবং মিথ্যা।

(Visited 404 times, 1 visits today)