আসন্ন ঈদুল আজহায় দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে ২১ ফেরি ও ৩৩ লঞ্চ চলাচল করবে-

রুবেলুর,ইমরান,আতিয়ার, রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

পবিত্র ঈদুল আযজায় ঘরমুখো যাত্রীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত ও আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে ঈদের আগে ও পড়ে মোট ১৫ দিন দেশের গুরুত্বপূর্ণ রাজবাড়ীর দৌলতদিয়ায় মোতায়েন থাকবে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।

বৃহস্পতিবার সকালে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া রুটে ফেরি সার্ভিক, লঞ্চ চলচাচলসহ জলযান সুষ্ঠভাবে চলাচল নিশ্চিতকরণ ও যাত্রীদের যাত্রা নির্বিঘ্নের লক্ষে প্রস্তুতিমূলক সভায় এ কথা বলেন জেলা প্রশাসক মোঃ শওকত আলী।

এছাড়া ঈদের সময় দৌলতদিয়ায় ঘাট সংশ্লিষ্ট
সকল দপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ছুটি দেওয়া যাবে না বলে জানান এবং দূর্যোগপুর্ণ পরিস্থিতি মোকাবেলা ও দূর্ঘটনায় সেবা দেওয়ার জন্য প্রস্তুত থাকতে বলেছেন ফায়ার সার্ভিস ও স্বাস্থ্য বিভাগকে।

ছুটি বাতিলকৃত দপ্তরগুলো হলো- বিআইডব্লিউটিসি, বিআইডব্লিউটিএ, সড়ক ও জনপথ বিভাগ, পানি উন্নয়ন বোর্ড ও বিদ্যুৎ বিভাগ।

সভার সভাপতিত্ব করেন, জেলা প্রশাসক মোঃ শওকত আলী।

জেলা প্রশাসক বলেন, ঈদে যাত্রীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সার্বক্ষনিক প্রস্তুত থাকবে। নৌপথে চলবে না ফিটনেস বিহীন কোন লঞ্চ এবং নেওয়া যাবে না অতিরিক্ত কোন যাত্রী। ট্রাফিক ব্যবস্থা নিয়ন্ত্রণ করতে হবে সতর্কতার সাথে। সিরিয়াল নিয়ন্ত্রণ করতে পারলে কোন সমস্যা হবে না। ঈদে ঘর মুখো যাত্রী ও যানবাহন পারাপারে মন্ত্রণালয়ে এবার ২১টি ফেরির চাহিদা দিয়েছেন, তবে আশা করছেন পাবেন ২০টি ফেরি। নদীতে নিরাপত্তা ও ফিটনেস বিহীন লঞ্চ চলাচল এবং ইঞ্জিন চালিত নৌকা যেন না চলে সে জন্য ২৪ ঘন্টা থাকবে নৌ পুলিশ ।

তিনি আরো বলেন, যাত্রীদের থেকে অতিরিক্ত কোন ভাড়া আদায় করলে নেওয়া হবে ব্যবস্থা। দ্রুত বাস মালিক গ্রুপসহ অন্যান্যে যানবাহন সমিতি বা কমিটিকে ভাড়া চার্ড দিতে বলা হয়েছে। সরকারের ভাবমূর্তি রক্ষায় ঘাটে কোন আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি মেনে নেওয়া হবে না। ঈদ উপলক্ষে ঘাট সংশ্লিষ্ট দপ্তরগুলোর কর্মকর্তা-কর্মচারীর ছুটি বাতিল করা হবে এবং ঘাটে থাকবে ঈদের আগের ৭দিন, ঈদের দিন ও ঈদের পাড়ের ৭দিনসহ মোট ১৫ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।

এছাড়া ঘাট এলাকায় ওই সময় সার্বক্ষনিক বিদ্যুৎ ব্যবস্থা রাখতে হবে এবং সড়কে দৌলতদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে লাইটিং ও সড়কের পাশে বাথরুমের ব্যবস্থা করে দেবেন। দূর্যোগপূর্ণ সময় ও দূর্ঘটনায় সেবা দিতে প্রস্তুত থাকতে বলেছেন স্বাস্থ্য বিভাগ ও ফায়ার সার্ভিসকে।

জেলা পুলিশ প্রশাসন জানান, ঈদে ঘাটের আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে সকল ধরনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন পুলিশ প্রশাসন।

জেলা সড়ক ও জনপথ বিভাগ জানান, ঈদের আগেই রাস্তার ছোট ছোট ভাঙ্গন গুলো মেরামত করা হবে। যাত্রীরা নিরাপদে সড়ক দিয়ে গন্তব্যে পৌছাতে পারবে।

ট্রাফিক পুলিশ জানান, ঈদ উপলক্ষে রাজবাড়ীর ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের জমিদার ব্রীজ হতে দৌলতদিয়া ঘাট পর্যন্ত যানজট নিয়ন্ত্রণে ট্রাফিক পুলিশ থাকবে। এ সময় প্রথমে গরুর গাড়ী, পরিবহন, কাঁচামাল বাহি ট্রাক ও সবশেষে অন্যান্যে যানবাহন পারাপার করা হবে।

পানি উন্নয়ন বোর্ড জানান, এখন বর্ষা মৌসুম, নদীর অবস্থা বেশি ভাল না। তবে ইতিমধ্যে দৌলতদিয়ার ফেরি ঘাটসহ ওই এলাকার ভাঙ্গন রক্ষার্থে পানি উন্নয়ন বোর্ড কাজ করেছে এবং জরুরী ভিত্তিতে কাজ করতে তারা সব সময় প্রস্তুত রয়েছে।

দৌলতদিয়া ঘাট বিআইডব্লিউটিসি, বিআইডব্লিউটিএ জানান, ঈদ উপলক্ষে যানবাহন ও যাত্রী পারাপারে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে ছোট বড় ২০টি ফেরি থাকবে এবং ৬ টি ফেরি ঘাট সচল থাকবে। এছাড়া এরুটে চলাচল করবে ৩৩ টি লঞ্চ। তবে এখন অন্যান্যে সময়ের তুলনায় ফেরি পরাপারে সময় লাগছে প্রায় দিগুন এবং ঈদে যানবাহনের চাপও বৃদ্ধি পাবে। এ বিষয়টাউ সবাই জানতে হবে।

সভায় বক্তব্য রাখেন, রাজবাড়ী সদর পৌর মেয়র মহম্মদ আলী চৌধুরী, ফরিদপুর র্যাব-৮ এর ২ নং কোম্পানির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ রইছ উদ্দিন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) রেজাউল করিম, গোয়ালন্দ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আবু নাসার উদ্দিন প্রমূখ।

(Visited 47 times, 1 visits today)