রাজবাড়ী জেলা আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক কমিটির সভা অনুষ্ঠিত –

রুবেলুর রহমান, রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

রাজবাড়ী জেলা প্রশাসক মোঃ শওকত আলী বলেছেন, ঢাকা ডিভিশনের অন্যান্যে জেলার তুলনায় রাজবাড়ীতে চলতি বছরের মে মাসের তুলনায় মাদক বাদ দিয়ে আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি অনেক ভাল। তবে মাদকের যে বিষয়টুকু আছে সেটি দৌলতদিয়া পতীতাপল্লীর কারণে। রোববার দুপুর ১২টার দিকে জেলা আইন শৃঙ্খলা বিষয়ক কমিটির সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

জেলা প্রশাসক মোঃ শওকত আলীর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, পুলিশ সুপার আসমা সিদ্দিকা মিলি বিপিএম , জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফকির আব্দুল জব্বার,  সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ রহিম বকস, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এ্যাডঃ এমএ খালেক, পাংশা উপজেলা চেয়ারম্যান ফরিদ হাসান ওদুদ, গোয়ালন্দ উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ এবিএম নুরুল ইসলাম প্রমূখ এছাড়া অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মোঃ ছাদেকুর রহমান, বালিয়াকান্দি উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদসহ জেলার বিভিন্ন সরকারী-বেসরকারী দপ্তর বা প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা, রাজনৈতিক ব্যাক্তি উপস্থিত ছিলেন।

জেলা প্রশাসক বলেন, জেলার আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি ভাল রাখতে নিয়মিত ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হচ্ছে। পাশাপাশি মাদক ও অপরাধ নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে জেলা পুলিশসহ অন্যান্য আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। জেলায় চলতি বছরের মে মাসের পরিসংখ্যানের তুলনায় জুন মাসের আইন শৃঙ্খলা ভাল। হত্যা, চুরি, অস্ত্র আইনে মামলা, নারী নির্যাতনসহ অন্যান্য সকল ক্ষেত্র গুলোই হৃাস পেয়েছে। তবে মাদকের চলমান বিষয় নিয়ে তারা সবাই সিরিয়াস রয়েছেন এবং মাদক সংশ্লিষ্ট প্রতিটি দপ্তর নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করছেন। দৌলতদিয়ায় দেশের বৃহত্তর পতীতাপল্লী হওয়া ও এক শ্রেনীর সুবিধা ভোগীদের জন্য জেলায় মাদকের কার্যক্রম রয়েছে। যেটা নিয়ন্ত্রণে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী চেষ্টা করে যাচ্ছেন। জুন মাসে বিপুল পরিমান মাদকদ্রব্য উদ্ধারসহ মাদক ব্যবসায়ী ও সেবীদের আটকের পর ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে সাজা দেওয়া হয়েছে।
তিনি ট্যাক্স কর্মতাদের উদ্দেশ্যে করে বলেন, বিগত এক বছরের মধ্যে আপনাদের কোন কার্যক্রম নাই। আপনারা বাজারে অবৈধ মামলাল পেলেই ধরবেন। দেশিয় শিল্পের বিকাশ ঘটাতে অবৈধ বিদেশী পন্য বাজারজাত বন্ধ করতে হবে। কিছু ব্যবসায়ীরা অভিযানের বিপক্ষে বলছেন এবং তাদের জানিয়ে অভিযান পরিচালনা করারও প্রস্তাব করেছেন। সব কথার শেষে কথা অভিযান চলছে এবং চলবে।
তিনি আরো বলেন, আজ ফরিদপুর হতে রাজবাড়ী পর্যন্ত ৩০ কিলোমিটার ৩৩ হাজার ভোল্টের বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইনের পরীক্ষামুলক ভাবে চালু হচ্ছে। বর্তমানে পল্লী বিদ্যুতে কোন সমস্যা নাই এবং আগামী ৬ মাসে ওজোপাডিকোর বিদ্যুৎ লাইনেও সমস্যা থাকবে না। আর সাব গ্রীড স্টেশনটি হলে রাজবাড়ীতে বিদ্যুতের আর কোন সমস্যাই থাকবে না। এছাড়া নদীতে পানি বেশি থাকায় শহর রক্ষা বাঁধের কাজ করতে পারছেন না ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। তবে আগামী সেপ্টেম্বরে কাজ শুরু করবেন। এ সময়ের মধ্যে বাঁধে কোথাউ সমস্যা দেখা দিলে বালুর বস্তা ফেলা হবে।
এছাড়া সম্প্রতি হয়ে যাওয়া পবিত্র ঈদুল ফিতরে যানজন ও ভোগান্তি ছাড়াই দৌলতদিয়া প্রান্ত দিয়ে ঈদে ঘরমুুখো মানুষ এবং ঈদ শেষে কর্মস্থল মুখি মানুষ নির্বিগ্নে নিরাপদে তাদের গন্তব্যে পৌছানোয় ঘাট সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা ও আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সকল সদস্যকে ধন্যবাদ জানান।

(Visited 45 times, 1 visits today)