গোয়ালন্দে ইউএনও’র হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ে বন্ধ –

শিকদার মুহা. আসজাদ হোসেন আজু, রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

 

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়ায় শুক্রবার বিয়ের আয়োজন চলছিল অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী সুমাইয়ার। ঠিক সেই মুহুর্তে বিয়ে বন্ধ করতে হাজির হন গোয়ালন্দ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আবু নাসার উদ্দিন। কনের অভিভাবকের কাছ থেকে বিয়ে না দেয়ার মুচলেকা নিয়ে দন্ডের হাত থেকে রেহাই দেন স্কুলছাত্রীর অভিভাবকদের।
গোয়ালন্দ উপজেলা সমাজ সেবা অফিসার মো. জহিরুল ইসলাম জানান, দৌলতদিয়া খানকা শরীফ মসজিদ এলাকার আব্দুল মান্নানের মেয়ে সুমাইয়া খাতুনের (১৪) বিয়ে রাজবাড়ী সদর উপজেলার বরাট ইউনিয়নের উড়াকান্দা গ্রামের মজিবর রহমানের ছেলে ফার্নিচার ব্যবসায়ী রেজাউল করিমের সাথে সম্পন্ন করার আয়োজন করা হয়েছিল। বিষয়টি গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পেরে ইউএনও এবং তিনি শুক্রবার দুপুরে বিয়ে বাড়িতে হাজির হন। এসময় বাল্যবিয়ের কুফল এবং শাস্তির বিষয়টি সুমাইয়ার অভিভাবকদের জানালে তারা ভুল স্বীকার করে বিয়ে বন্ধে সম্মত হন। সেই সাথে ফোনে বর পক্ষকে বিয়ে করতে আসলে শাস্তির কথা জানান। এতে বাল্যবিয়ের হাত থেকে মুক্তি পায় মুক্তিযোদ্ধা ফকীর আব্দুল জাব্বার গার্লস্ স্কুল এন্ড কলেজের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী সুমাইয়া।

(Visited 55 times, 1 visits today)