রাতের আঁধারে লুকিয়ে ঘরে ঢুকে রাজবাড়ীতে সংখ্যালঘু কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ-

রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

 

লুকিয়ে ঘরের মধ্যে ঢুকে সংখ্যালঘু পরিবারের দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্রী (১৮) এক ছাত্রীকে ধর্ষণ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ওই অভিযোগে গতকাল শুক্রবার সকালে ওই ছাত্রী বাদী হয়ে রাজবাড়ী সদর উপজেলার পাঁচুরিয়া ইউনিয়নের খোলাবাড়িয়া গ্রামের মুজা সেখের ছেলে ও রাজবাড়ী সরকারী কলেজের ডিগ্রী তৃতীয় বর্ষের ছাত্র জাকির হোসেন (২৫)-এর বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।
ওই ছাত্রী জানান, বেশ কিছু দিন যাবৎ জাকিরের সাথে তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ওই সম্পর্কের অংশ হিসেবে জাকির তাকে বিয়ের আশ^াস দিয়ে বিভিন্ন সময়ে নানা স্থানে নিয়ে তাকে একাধিক বার ধর্ষন করে। তিনি বিয়ের কথা বললে জাকির তালবাহানা শুরু করে। এরই মাঝে গত বুধবার রাত ১১টার দিকে তিনি প্রাকৃতিক ডাকে সারা দিতে ঘরের বাইরে যান। ওই সুযোগে পূর্ব থেকে ওৎ পেতে থাকা জাকির তার ঘরের মধ্যে প্রবেশ করে লুকিয়ে থাকে। তিনি ঘরে প্রবেশ করতেই জাকির তার মুখ আটকে ধরে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে। তিনি চিৎকার ও কান্নাকাটি করেন। তার চিৎকারের শব্দে পাশের ঘরে থাকা বৌদি এগিয়ে আসেন। জাকির বৌদিকে ধাক্কা মেরে পালিয়ে যায়। যে কারণে তিনি পরিবারের সদস্যদের সাথে আলোচনা করে নিজেই বাদী হয়ে রাজবাড়ী থানায় জাকিরের বিরুদ্ধে ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোর পূর্বক ধর্ষণের অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করেছেন।
এ মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও রাজবাড়ী থানার এসআই জাহাঙ্গীর মাতব্বর বলেন, গতকাল দুপুরে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে ওই ছাত্রীর ডাক্তারী পরীক্ষা করানো হয়েছে। তবে ঘটনার পর থেকেই আসামি জাকির হোসেন আতœগোপনে থাকায় তাকে গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়নি। তাকে গ্রেপ্তার করতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

(Visited 661 times, 1 visits today)