গোয়ালন্দের গৃহহীন ৩২৭ পরিবারের মাঝে বসত ঘর বিতরণ –

আজু সিকদার/নজরুল ইসলাম, রাজবাড়ী বার্তা ডট কম :

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অগ্রাধিকার প্রকল্প “যার জমি আছে ঘর নেই, তার নিজ জমিতে গৃহনির্মাণ” প্রকল্পের আওতায় প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত “সবার জন্য বাসস্থান” নিশ্চিতকরণার্থে রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দ উপজেলায় ৩২৭টি বসত ঘর নির্মাণ করা হয়েছে।  রবিবার বিকেলে উপজেলার উজানচর ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ওই ঘর গুলোর হস্তান্তর অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে সুবিধাভোগি পরিবারের হাতে গৃহ হস্তান্তর করেন, রাজবাড়ী-১ আসনের সংসদ সদস্য কাজী কেরামত আলী।
এ উপলক্ষে গোয়ালন্দ উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ও অর্থায়নে গৃহহীণদের জন্য নির্মিত গৃহ হন্তান্তর ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় রাজবাড়ী জেলা প্রশাসক মোঃ শওকত আলীর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন রাজবাড়ী জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা ফকীর আব্দুল জব্বার, স্থানীয় সরকার শাখার উপ-পরিচালক ড. একেএম আজাদুর রহমান, গোয়ালন্দ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এবিএম নরুল ইসলাম, গোয়ালন্দ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ নরুজ্জামান মিয়া, সহকারী কমিশনার (ভুমি) শেখ আব্দুল্লাহ সাদীদ, গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি মীর্জা একে আজাদ, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের সদস্য নুরুজ্জামান মিয়া, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও দৌলতদিয়া ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম মন্ডল, উজানচর ইউপি চেয়ারম্যান আবুল হোসেন ফকীর, দেবগ্রাম ইউপি চেয়ারম্যান আতর আলী সরদার প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে গোয়ালন্দ নির্বাহী অফিসার মোঃ আবু নাসার উদ্দিন স্বাগত বক্তব্য বলেন, “যার জমি আছে ঘর নাই তার নিজ জমিতে গ্রহ নির্মান” প্রকল্পের ঘর হস্তান্তর করা হলো। উপজেলার উজানচর ইউনিয়নের ৭৮টি পরিবারের মধ্যে নতুন ঘরের চাবি তুলে দেওয়া হলো। তিনি জানান, গোয়ালন্দ উপজেলার ৪টি ইউনিয়নে ৩২৭টি ঘর দেওয়ার কাজ শেষ হয়েছে। পর্যায়ক্রমে তাদের নতুন ঘরের চাবি তুলে দেওয়া হবে।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি সংসদ সদস্য কাজী কেরামত আলী বলেন, শেখ হাসিনার স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে দেশে কোন মানুষ যেন গ্রহহীন না থাকে সেই জন্য “যার জমি আছে ঘর নাই তার নিজ জমিতে গ্রহ নির্মান” প্রকল্পের ঘর হস্তান্তর করা হলো। গোয়ালন্দ উপজেলায় ৩২৭টি পরিবারের মধ্যে একটি করে ঘর দেওয়া হলো। এই কর্মসুচী অব্যাহিত থাকবে। এই জেলায় কোন ব্যক্তি গৃহহীন থাকবে না।

(Visited 48 times, 1 visits today)